Header Ads

হিপার সালফিউরিস (Hepar Sulphuris) [ হ্যানিম্যান প্রবর্তিত ক্যালসিয়াম সালফাইড ]

 হিপার সালফিউরিস (Hepar Sulphuris) [ হ্যানিম্যান প্রবর্তিত ক্যালসিয়াম সালফাইড ]
হিপার সালফিউরিস (Hepar Sulphuris) [ হ্যানিম্যান প্রবর্তিত ক্যালসিয়াম সালফাইড ]
জড়ভাবাপন্ন, শ্লেষ্মাপ্রধান ধাতু, যাহাদের চুল পাতলা, বর্ণ হালকা কাজকর্ম ধীরে করে, পেশী সমূহ কোমল ও থলথলে।
সামান্য আঘাতেও পুঁজ জন্মে (গ্রাফাই, মার্ক)। 

পারদের অপব্যবহার দ্বারা নষ্টস্বাস্থ্য ব্যক্তিদিগের রোগ। 

যে সকল রোগ পুঁজোৎপত্তি অপরিহার্য মনে হয়, হিপার স্ফোটক ফাটাইয়া দেয় এবং দ্রুত আরোগ্য করে। 

দৈহিক ও মানসিক উভয় দিক হইতে অত্যন্ত অনুভূতিযুক্ত, সামান্য কারণে রোগী উত্তেজিত হয়, তাড়াতাড়ি ও ব্যস্তভাবে কথা বলে ও তাড়াতাড়ি পান করে। 

রোগী খিটখিটে, অতি সামান্য ব্যাপারে চটিয়া উঠে, বিষাদবায়ু গ্রস্ত, অযৌক্তিকভাবে উৎকষ্ঠাগ্রস্ত। 

ঠান্ডা বায়ুতে অত্যনুভূতিযুক্ত, যদি পার্শের ঘরের দরজা খোলা থাকে, তাহা হইলেও সেখানকার বায়ু অনুভব করিতে পারে, এমনকি গরম কালেও মুখ পর্যন্ত কাপড়ে আবৃত রাখে ( সোরিন); অনাবৃত থাকা সহ্য করিতে পারে না ( নাক্স; আবৃত থাকা সহ্য করিতে পারে না-ক্যাম্ফর, সিকেলি); সামান্যমাত্র উম্মুক্ত বায়ুতে থাকিলে সর্দি লাগে (টিউবার)। 


মুত্র- মুত্রধারা বাধাপ্রাপ্ত হয়, ধীরে ধীরে মূত্র নিঃসৃত হয়, উহাতে বেগ থাকে না, লম্বাভাবে পতিত হয়, মূত্রপাতের শেষ হয় না, সবসময়ই মনে হয় কিছুটা মুত্র থাকিয়া গেল (এলু, সাইলি)। 

কাশি- শরীরের যে কোন অংশ অনাবৃত হইলেই কাশি দেখা দেয় ( রাস); কুপ সদৃশ, গলরোধকর, দমবন্ধকর কাশি, শুষ্ক পশ্চিমবায়ু, ভোগ বা স্থলবায়ু লাগানর ফলে কাশি (একোন)। 



হাঁপানি, শ্বাসক্রিয়া উৎকষ্ঠাযুক্ত, সাঁইসাঁইশব্দকর, ঘড়ঘড় শব্দবিশিষ্ট, হ্রস্ব ও গভীর শ্বাসক্রিয়া, দমবন্ধের আশঙ্কা দেখা দেয়, রোগীকে মাথা পশ্চাৎদিকে হেলাইয়া উঠিয়া বসিতে হয়; উদ্ভেদ বসিয়া যাওয়ার পরবর্তী হাঁপানি (সোরিন)। 

ক্রুপ, শুষ্ক ঠান্ডা বায়ু ভোগের পর (একোন); গভীর কর্কশ কুকুর ডাকের ন্যায় কাশি, তৎসহ স্বরভঙ্গ এবং শ্লেষ্মার ঘড়ঘড় শব্দ; ঠান্ডা বাতাসে, ঠান্ডা পানীয়ে, মধ্যরাত্রির পূর্বে, অথবা ভোরের দিকে বৃদ্ধি। 

গলার মধ্যে একটি চোঁচ, মাছের কাঁটা বা গোঁজ থাকার ন্যায় অনুভূতি(আর্জ নাই, নাই এসি); গলক্ষত, যখন পুঁজ জন্মিবার আশকা দেখা দেয়; পুরাতন বিবৃদ্ধি, তৎসহ শ্রবণশক্তির খর্বতা (লাইকো, প্লাম্বাম, সোরিন)। 

চর্ম অত্যন্ত স্পর্শকাতর, এমনকি আক্রান্ত স্থানে কাপড়ের স্পর্শও সহ্য করিতে পারে না ( ল্যাকে; মৃদু স্পর্শ সহ্য করিতে পারে না কিন্তু জোরে চাপ দিলে ভাল লাগে-সিঙ্কোনা)। 

চর্মরোগসমূহ অত্যন্ত স্পর্শদ্বেষযুক্ত, বেদনায় অনেক সময় মুর্ছিত হইয়া পড়ে।

ক্ষত, ইন্দ্রবিদ্ধা- উহা ছোট ছোট ফুস্কুড়ি বা পুঁজবটী দ্বারা পরিবেষ্টিত থাকে, ফুস্কুড়িগুলি মিলিয়া গিয়া ক্ষতটি বিস্তার লাভ করে। 

নিম্ন ওষ্ঠের মধ্যভাগ ফাটা ( এমন কার্ব, নেট্রাম মিউর- ওষ্ঠদ্বয়ের সংযোগস্থল ফাটা-কন্ডুরেঙ্গো)। 

চক্ষুগোলক, স্পর্শকাতর, বেদনায় মনে হয় যেন ঐগুলিকে মাথার মধ্যে ঠেলিয়া দিতেছে (ওলিয়েন্ড, প্যারিস)। 
উদরাময়, শিশুদের, তৎসহ টকগন্ধ (ক্যাল্ক কার্ব, ম্যাগ কার্ব; শিশুর দেহ এবং তাহার মলে টক গন্ধ-রিউম); মলের বর্ণ কাদার ন্যায় ( ক্যাল্ক কার্ব, পডো)। 

ঘর্ম, দিবারাত্র উপশম ব্যতীত ঘর্ম হয়, ঘর্মে টকগন্ধ, দুর্গন্ধ, সহজেই ঘর্ম হয়, প্রত্যেক প্রকার মানসিক বা দৈহিক পরিশ্রমে ঘর্ম (সোরিন, সিপিয়া)। 

সম্বন্ধ- কোমল অংশে আঘাতপ্রাপ্তিতে ক্যালেন্ডুলার অনুপুরক। হিপার পারদ এবং অন্যান্য ধাতুর যথা- আয়োডিন, আয়োডাইড অব পটাস, কডলিভার তৈল ইত্যাদির কুফল দূর করে, রোগীকে বায়ুমন্ডলের পরিবর্তনে এবং ঠান্ডায় কম অনুভূতিসম্পন্ন করিয়া তুলে। 

তুলনাঃ সালফারের সোরাদোষদুষ্ট চর্মরোগ শুষ্ক, কন্ডুয়নশীল, চুলকাইলে উপশম এবং স্পর্শে অত্যনুভুতিযুক্ত নহে, কিন্তু হিপারের চর্ম অস্বাস্থ্যকর, পুঁজ জন্মানর প্রবণতাবিশিষ্ট, আদ্র এবং অত্যন্ত স্পর্শকাতর।

উপচয়ঃ বেদনান্বিত পাশে শয়নে (ক্যালি কার্ব, আয়ড), ঠান্ডা বাতাসে অনাবৃত হইলে, ঠান্ডা জিনিস খাইলে বা না করিলে, আক্রন্ত অঙ্গ স্পর্শ করিলে, পারদের অপব্যবহারে। 

উপশম- সাধারণভাবে উত্তাপে (আর্স); উষ্ণ বস্ত্রে আবৃত হইলে, মস্তক আবৃত রাখিলে (সোরিন, সাইলি), স্যাতসেতে আদ্র্র আবহাওয়ায় (কষ্টি, নাক্সের বিপরীত-নেট্রাম সালফ)।

কোন মন্তব্য নেই

Blogger দ্বারা পরিচালিত.